তুমি ইতিহাস হতে চাও
আলেকজান্ডার!
পেল্লা থেকে ব্যাবিলন হয়ে
ওয়াশিংটন পৌঁছালে
ঘোড়া থেকে নেমে
নিজের নিষ্ঠুর উচ্চাকাঙ্ক্ষাগুলোকে
দামি পোষাকের আড়ালে
লুকাবার ব্যার্থ চেষ্টায়
কিছুটা সময় গেল
কিন্তু এই পৃথিবীর দেওয়া
খোঁড়া ভুগোলের পিঠে
দগদগে হয়ে ওঠা
তোমার চোয়ালের
গভীর ক্ষত থেকে এখনো
ঝড়ে পড়ছে জ্বলন্ত লোভ
ক্ষতও কি এতো শালীন হতে পারে
আলেজান্ডার !

আসলে এটা তোমার
হোয়াইট হাউসের যোজনা কক্ষের
মস্তিষ্ক প্রসুত শিশু
তোমার লালসাকে আমরা জানি
হোয়াইট হাউসে
না ফিরতে পারার ভয়ে
সংকুচিত হওয়ার মত
মেধার অধিকারি তুমি নও
বদলে যাওয়া পুরুর সাথে
তুমি হয়তো এই যুদ্ধের
তীর গুলোকে
তুণীরে পুরে ফেলতে পারো
কিন্তু কিছু তীর লক্ষভ্রষ্ট হয়ে
সঠিক স্থানে বিঁধবেই !

কিন্তু পুরু
তোমার বদলে যাওয়া
বড় ব্যাথা দেয়
সমস্ত বীরত্ব, মমত্ব , শক্তিকে
তুমি নির্বাচনী জয়ের
রঙ্গমঞ্চে আছড়ে দিয়েছ
আমরা নাটক ভালো লাগা মানুষেরা
বড় দেরীতে ফিরেছি
তুমিও কি একটু দ্রুত
ফিরতে পারো না
বদলে যাওয়া ‘পুরু’
!


তুমি কি কখনই বুঝবে না যে
গনতন্ত্রে পরাজয়
মৃত্যু নয়
ক্ষমতাও ধ্রুবতারা নয়
অথবা কোনো সম্ভবনার
লাশের বাগান
ফেরার জন্য চায় শুধু
একটু সততা
তুমি কি ওদের
সুখি করতে পারো না
পারো না অধিকারে এনে দিতে
একটু গরম ভাতের সুগন্ধ
!

ভয়ংকর মুক্তি

কলে কারখানায় জিন্দা লাশেদের

দমের আওয়াজ গুঞ্জরিত হয়
বাইরে পায়চারি করে বেকার যুবক
মিশর-গ্রীসের অসহায় দাসেদের মতো
অজানা দেশের বাজারে বিক্রি
হয়ে যাওয়া মানুষগুলোর জমায়েতে
নিজের ভয়ংকর মুক্তি নিয়ে
কে স্বাধীনতার বাণী কপচায়
?

এই প্রহসনে তরবারি স্বাধীন

নিপীড়িত মানুষের বুক বেঁধার জন্য,
বর্দি স্বাধীন নিরপরাধ মানুষের
উপর অত্যাচার করার জন,
মৃত্যু স্বাধীন লাশেদের সংখ্যায়
বৃদ্ধি ঘটাবার জন,
এর মাঝে নিজের ভয়ংকর মুক্তি নিয়ে
কে স্বাধীনতার বাণী কপচায় !

অভদ্র সওদাগর

সব কিছু বিক্রি হয়ে যাবে

শুধু খদ্দেরের অপেক্ষায় শাসক

আর সেই দৃঢ় বিশ্বাসে

গণতন্ত্র গণতন্ত্র বলে উচ্চস্বরে

হেঁকে যাচ্ছেঅভদ্র সওদাগর !

প্রথমেই বিক্রি হবে

সব থেকে সস্তা মানুষ

তা যদি বিক্রি না হয় তো

নির্বাচিত নির্লজ্জ প্রতিনিধি বিক্রি হবে

সেও যদি না বিক্রি হয় তাহলে

নেতা সহ পুরো দলই বিক্রি হয়ে যাবে

যে কোন স্তরেই চুক্তিটি সাফল্য পাবে !

নৈতিকতার কি প্রয়োজন

সে তো কবেই চুকে গেছে

দরকারে তা বাজার থেকে কিনে আনা যাবে

আর লাজুক সততা

এটি যতটা ব্যয়বহুল ততটাই সস্তা

পাঁচ বছরে বাবার সততা বেড়েছে তিনশ শতাংশ

ছেলের তো কথায় নেই

সব থেকে সস্তায় বিক্রি হয় ধর্ম

এতে এতো অর্থ পাওয়া যায় যে

সব কিছু কেনা যায় এমনকি গণতন্ত্রও!

মিলি মুখার্জী

Related Posts

2 thoughts on “লালসা

  1. ‘ভয়ঙ্কর মুক্তি’ আর ‘অভদ্র সওদাগর’ এই দুটো কবিতা ভাল লাগল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *