অভিধান-দিলীপ সরকার

সেই কিশোর কিশোরী

চোখেই

তোমাকে পড়ার,তোমাকে

জানা’র আগ্রহ, কৌতুহল।

দুই একটা সমুদ্রের, মহা

সাগরের কূল দেখেছি মাত্র,

নদী পথে আঁকাবাকা

কিছু টা পথ নল,

কাশ,হোগলের সমারোহ

আর চাষের জমি।

গ্রাম, শহরে চলতি পথে

যতটা তোমাকে পড়া

যায়।

পাহাড়ের মালভূমির

কিনারায় দাঁড়িয়ে

দুই হাতের আলিঙ্গনে

তোমাকে পেয়েছি

কল্পনায়।

ঝি ঝি পোকার ডাকে

অরণ্যের গভীরে

কত যে নতুন শব্দ রাশি,

পড়তে পারিনি আজীবন।

হয়তো কেউ কোন দিন

তোমাকে পড়তে পারবে না

তোমার বিশালতা, তোমার

গভীরতা রহস্যময়,

কেউ পারেনি জানতে,

আজন্মকাল অজানাই

থেকে যাবে তুমি,

সৃষ্টির শুরু থেকে আজ-ও

সেই অবাক কৌতুহল।

বিস্ময় নিয়েই তাকিয়ে

দেখি আকাশের তারার

দিকে।

পৃথিবী ভেঙে ই নাকি

চাঁদের সৃষ্টি

অতঃপর ঋতু, বৃষ্টি,

বায়ুমন্ডল, জোয়ার ভাটা

ধীরে ধীরে প্রাণ সঞ্চারিত

আর বিবর্তনে তুমি আমি।

Related Posts

One thought on “অভিধান-দিলীপ সরকার

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *