বন্ধুত্বের দাবি রাখি আজ

ঝলসে যাওয়া হৃদয়ের যে মানুষগুলো

রাজপথে উলংগ জীবন যাপন করে

তাদের কাছে আমি বন্ধুত্বের দাবী রাখি ।

দুটো দাঁড়ির মাঝে ঝুলছে যাদের জীবন

বর্ণমালারা মেরুদন্ডে লাথি মারে তাদের

মঞ্চের খুব কাছাকাছি ব্যরিকেড করে ওরা

কাগুজে বাঘ দেখছে বিস্ময়ে ।

সকাল বিকাল আসা-যাওয়া ওদের বুকে পেতে

ছলাকলার হাজার ছেনালিপনা

মৃত মানুষের মুখের ওপোর মুখোশ চাপিয়ে দিয়ে

জিবনের সাথে করছে প্রতারনা ।

চাঁদবনিকের মত কবে যে ফুঁসে উঠবে

চ্যাঙমুড়িকানির বিরুদ্ধে

বড্ড লোভী ওরা এক থালা ভাত খাবার জন্য

ব্যরিকেড করে ঘিরে রাখে

নিজের জীবন বাজি রেখে।

শেষের সে দিন

এখন সময় যুদ্ধে যাবার

চাঁদের কোলে জোছনার জাল

সরিয়ে দিয়ে আঁধার সময়

সূর্যো কেটে আসুক সকাল

আগামীকালের লড়াকুরা সব

অটল জেদে বিপ্লবী মনসিজ

আনুগত্যের শিকিল কেটে

ছড়িয়ে পড়েছে রক্তবীজ।

শ্রেণি বিহীন সমাজ বন্ধু

লড়াইয়ের শেষে আসবেই

আকাশের বুকে কালো মেঘ চিড়ে

রামধনু রঙ জাগবে যে ধীরে

মরচে যতই ধরুক অস্ত্রে

যুদ্ধ হলে সে জাগবেই

মগজের কোষে বারুদ জমেছে

সময় হলে সে দাগবেই ।

ইশারা মানেই গোপোনীয়তা

খণ্ডিত মুখ আয়নায় ধরা

তুমি আর আমি মাঝে কেউ নেই

মগজের কোষে অসনাক্ত ভুল

ভুলের মাশুল দিতে তো হবেই

মিছিলে-মিছিলে জাগছে শহর

মিছিলের বুকে দাবীর খবর

হারানোর আর কিছু নাই।

আপোষ-রফায় মগ্ন জীবন

স্বপ্ন চষা মানুষের মন

কে রাখে হিসেব , শুধু জানি আজ

ভালোবাসা প্রিয় হেমলক

হায় রে সময় হায় ইতিহাস

হায় রে শাসক একি পরিহাস

নিপীড়িত যত দুনিয়া জুড়ে

আজ তোমাদের জয় হোক ।

মিলি মুখার্জী

Categories: Uncategorized

0 Comments

Leave a Reply

Avatar placeholder

Your email address will not be published.