মার্ক্সীয় চিন্তা , শোষন মুক্তির পথনির্দেশ , মজুরী দাসত্বের অবসানের উপায় , সমৃদ্ধশালী সমতার সমাজ , প্রতিষ্ঠার শিক্ষা । তবুও নির্যাতীত মানুষ এই ভাবনাকে ঘৃণাভরে বাতিল করেছে তার কারণ আমার যেমন মনে হয়েছে , ৩৪ বছর বাম শাসনের ব্যর্থতা , ৭৫ বছরের রাশীয়ার সমাজতন্ত্রের পতন , রোমানীয়ার চেসেস্কুর উচ্ছৃঙ্খল শাসন , চীনে মাওবাদের নামে রাষ্ট্রীয়-স্বৈরতন্ত্র তাবড় শ্রমজীবী মানুষকে কমিউনিজম বিদ্বেষী করে তুলেছে । মার্ক্স থেকে মাও এই দীর্ঘ যুগ ধরে ঘটে যাওয়া সমস্ত বিপ্লবের ব্যর্থতা বিপ্লবের প্রতি মানুষের আস্থাকে প্রশ্ন চিহ্নের মধ্যে রেখে দিয়েছে ।তৃতীয় আন্তর্জাতিকে পৃথিবীর সমস্ত কম্যুনিস্ট শক্তির ঐক্যবদ্ধ মঞ্চ নষ্ট হওয়ার পর আর কোন ঐক্যবদ্ধ প্রচেষ্টা না গড়ে ওঠা হতাশার আর একটি মূল কারণ ।মার্ক্স-লেনিনীয় চিন্তাভাবনায় কিছু সীমাবদ্ধতা , বর্তমান আর্থ-সামাজিক পরিপ্রেক্ষিতকে ব্যাখ্যার পক্ষে অচল হয়ে পড়েছে ।জাতীয়তাবাদের যুগের অবসান ঘটে গেছে । এখন আন্তর্জাতিকতার যুগ , কি ব্যবসায় , কি শিল্প-সাহিত্য-সংস্কৃতিতে , উতপাদনের আন্তর্জাতিক নেট-ওয়ার্কে । এই অবস্থানের পরিপ্রেক্ষিতে রাষ্ট্র প্রায় অপ্রাসঙ্গিক হয়ে পরছে । এমতাবস্থায় সমগ্র বিশ্বে শ্রমিক ঐক্যের মাধ্যমে কম্যুনিস্ট বিল্পবের ভাবনা এবং বাস্তবতা লক্ষ্য করা যাচ্ছেনা ।টেলিফোন , তথ্য-প্রযুক্তি , কৃত্রিম-বুদ্ধিমত্তা , রোবট-প্রযুক্তি , বিট-কয়েন জাতীয় আন্তর্জাতিক ডিজিটাল মুদ্রার বাড়-বাড়ন্ত দেশে-দেশে কম্যুনিস্ট দলের লড়াইকে ভোঁতা করে দিয়েছে । কম্যুনিস্ট চিন্তার মানুষদের মধ্যে প্রশ্ন উঠে গেছে যে উদ্বৃত্ত মূল্য থেকে পুঁজির পাহাড় গড়ে ওঠার অবকাশ কমে যাচ্ছে । মার্ক্সীয় চিন্তাকে বিকশিত করার অন্তত্য জরূরী পরিস্থিতির সম্মুখীন হয়েছে সমাজ । ব্যক্তিগত সম্পত্তি কেড়ে নেওয়া হয় কম্যুনিস্ট দেশে এই ধারণা খেটে খাওয়া মানুষের মস্তিষ্কে ভীতি সঞ্চার করেছে । প্রলেতারিয়েত ডিকটেটরশিপ বা কম্যুনিস্ট পার্টির একনায়কতন্ত্রের ধারণা সম্পর্কে মানুষ হতাশ । কম্যুনিস্ট পার্টিতে গণতান্ত্রিক কেন্দ্রীকরণ , এই ব্যবস্থা সম্পর্কে মানুষ বিভ্রান্ত । বিড়ি-শিল্প ,পাট-শিল্প ,চা-শিল্প ইত্যাদি ইত্যাদির শ্রমিকদের সংগঠিত করবে যে উন্নত শ্রমিক , সেই নেতৃত্বদায়ী শ্রমিক কারা হবে ( যারা পুঁজির মৃত্যূবাণকে চেনে ) তা এখনই ঠিক করতে হবে ।এছাড়াও অনেক প্রশ্ন যা আপনারা তুলবেন আগামী দিনে সমাজ বদলের চিন্তায় । মার্ক্সীয় চিন্তার উন্নত-সংস্করণে চলতি পুঁজি-শক্তির বিরুদ্ধে লড়াই সক্ষম কম্যুনিস্ট পার্টি গড়ে তুলতে বিশ্বজনীন ঐক্য গড়ে তোলায় আশু কাজ ।


তারাশংকর ভট্টাচার্য

Categories: Uncategorized

0 Comments

Leave a Reply

Avatar placeholder

Your email address will not be published.